মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন

করোনার সবশেষ
করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৮৩ জন, শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ২০১ জন আসুন আমরা সবাই আরও সাবধান হই, মাস্ক পরিধান করি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি।  

সাঁথিয়ায় গৃহবধুর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনার সাঁথিয়ায় সীমা (২৫) নামে এক গৃহবধুর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ উঠেছে দুই পরিবারের মধ্যে।

সীমার পরিবারের দাবী তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। অপরদিকে সীমার শশুরের দাবী সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে।

নিহত সীমার শশুর জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে সীমা অসুস্থ হলে তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে শুক্রবার ভোর রাত সাড়ে ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

নিহত সীমার বাবা আব্দুল গণি প্রামাণিক জানান, সীমার স্বাভাবিক মৃত্যু হয় নাই। তাকে মেরে ফেলা হয়েছে দাবী করে বলেন, সাড়ে ৬ বছর আগে আর-আতাইকুলা ইউনিয়নের গাঙ্গুয়াহাটি নতুন পাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে কামালের সাথে সীমার বিয়ে হয়।

বিয়ের কিছু দিন পর কামাল বিদেশ চলে যায়। তাদের সংসারে সাড়ে ৫ বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। তিনি বলেন বিয়ের পর থেকে সীমাকে ওর শশুর শাশুড়ী নির্যাতন করতো। তাদের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে মাঝে মাঝেই সীমা শশুর বাড়ি থেকে চলে আসতো। আবার তাকে সংসার করাবো বলে বুঝিয়ে শুনিয়ে পাঠিয়ে দিতাম।

তিনি আরও বলেন,আমার মেয়ে অসুস্থ হলে আমাকে না জানিয়ে তারা হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে তার মৃত্যুর পর বলছে যে সীমা মারা গেছে।

তিনি অভিযোগ করে আরও বলেন, গত বুধবারে সীমা ওর মায়ের একাউন্ট থেকে ২ লাখ টাকা তুলে ওর শশুরকে দেয়। টাকা নেয়ার একদিন পরেই ওর মৃত্যুর সংবাদ দিল তারা।

তিনি বলেন, অবশ্যই সীমাকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনাদের মাধ্যমে প্রশাসনের নিকট আমি এর সুষ্ঠ তদন্ত ও সঠিক বিচার দাবী করছি।

এদিকে গত শুক্রবার সীমার লাশ জানাযার জন্য তৈরি করা হলে অভিযোগের প্রেক্ষিতে আতাইকুলা থানা পুলিশের সদস্যরা হাজির হয় সীমার শশুর বাড়ি।
সেখান থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়ে দেন। ময়না তদন্ত শেষে থানা পুলিশ শনিবার লাশ হস্তান্তর করেন সীমার শশুর জাহাঙ্গীরের নিকট।

এতে বাধ সাধে সীমার পরিবার। তারা পুলিশের নিকট অভিযোগ দেন যে লাশ তারা নিয়ে যাবে দাফনের জন্য। পরে থানা পুলিশের নির্দেশে সীমার লাশ তার স্বজনদের নিকট ফেরত দেন শশুর বাড়ির লোকজন। পরে শনিবার দিন রাতেই স্থানীয় গোরস্থানে সীমার লাশ দাফন হয়।

আতাইকুলা থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় আতাইকুলা থানায় একটি ইউডি মামলা হয়েছে যার নং-৩,তারিখ ০৬-০৩-২০২১ইং।

এটা স্বাভাবিক মৃত্যু নাকি হত্যা তা ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলেই জানা যাবে।

0
1
fb-share-icon1


শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের প্রিন্স অফ পাবনা

Posted by News Pabna on Thursday, February 18, 2021

© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!