মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন

সাঁথিয়া থানা পুলিশের সহযোগীতায় বাড়ি ফিরল ভারসাম্যহীন নারী

বার্তা সংস্থা পিপ, পাবনা : পাবনার সাঁথিয়ায় মানুষিক ভারসাম্যহীন একজন নারীকে উদ্ধার করে তার বাবার নিকট তুলে দিয়েছে সাঁথিয়া থানা পুলিশ। সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম জানান , গত ০১ আগস্ট রাত সোয়া ৯টার সময় একটি মেয়ে (২০) সাঁথিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান এর বাসার সামনে এসএসএস নামে একটি এনজিও প্রতিষ্ঠানের দরজা খোলা পেয়ে ভিতরে প্রবেশ করে।

খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। মেয়েটিকে জিজ্ঞাসাবাদে তার নাম ঠিকানা না বলে অসংলগ্ন কথা বলে। শুধু বলে সে তার বান্ধবীদের সাথে পাবনা মানসিক হাসপাতালে ঘুরতে এসেছিল। বান্ধবীরা তাকে রেখে চলে গেছে। তার বাড়ি ঢাকা মিরপুর বলে জানায়। তার কথাবার্তা অসংলগ্ন হওয়ায় পুলিশ সুপারের নির্দেশে জিডি মুলে নারী পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়।

পরে তার পরিচয় উদঘাটনের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় পাবনা জেলা পুলিশের আইডিতে ওই নারীর ছবি দিয়ে কেউ মেয়েটির পরিচয় জানলে যোাগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করে পোষ্ট দেয়া হয়। ফেসবুকে পোষ্ট দেয়ায় বিভিন্ন কমেন্টসের সুত্র ধরে পুলিশ মেয়েটির পরিচয় জানতে পারেন যে সে সাঁথিয়া উপজেলার করমজা ইউনিয়নের করমজা পশ্চিম পাড়া আজগর আলীর মেয়ে। পরে পুলিশ তার বাবাকে থানায় ডেকে এনে যাচাইবাছাই করে রাতেই ওই নারীকে হস্তান্তর করেন।

ওই নারীটির ভারসাম্যহীনের বিষয়ে খোঁজ নিতে গেলে জানা যায়, গত বছর সেনাবাহিনীতে কর্মরত এক ব্যক্তির সাথে মেয়েটির সম্পর্ক হয়। পরে ওই সেনাসদস্য ওই নারীকে বিয়ে না করে অন্য কাউকে বিয়ে করতে গেলে মেয়েটি সাঁথিয়া থানায় অভিযোগ দেন। পরে ওই সেনা সদস্য তাকে ৫ লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ে করেন।

বিয়ের পর তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় মেয়েটির বাবা কাবিনের ৫ লাখ টাকা নিয়ে সেনাসদস্যর কাছ থেকে ডিভোর্স নেন। কিছুদিনের মধ্যে মেয়েটির মা মারা যান। মা মারা যাওয়া ও বিয়েতে ডিভোর্স হওয়া বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আস্তে আস্তে ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে।

0
1
fb-share-icon1


© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!