সাঁথিয়ায় সোনার দোকানে ডাকাতি, ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদ

সাঁথিয়ায় ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদ সভা

সাঁথিয়ায় ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদ সভা

সাঁথিয়া প্রতিনিধি : সাঁথিয়া উপজেলার কাশিনাথপুরে শুক্রবার (১০ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে স্বর্নের দোকানে ভয়াবহ ডাকাতির ঘটনায় শনিবার (১১ জুন) প্রতিবাদ সভা করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

লুটকৃত স্বর্ণালংকার উদ্ধার না করা হলে ও সোনাপট্রীতে পুলিশি নিরাপত্তা কঠোর না করলে আন্দোলনের হুমকি দেন ব্যবসায়ীরা।

এ সময়, নির্বিঘ্নে ব্যবসার সুযোগ তৈরির জন্য প্রশাসনের সহযোগীতা চান ব্যবাসায়ী নেতারা।

উল্লেখ্য, কাশিনাথপুরে শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে মক্কা জুয়েলার্সে একদল ডাকাত হামলা চালায়। এসময় ডাকাত দল ৪ থেকে ৫টি হাত বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় ও ২ রাউন্ড গুলি করে।

মক্কা জুয়েলার্সের মালিক সাইফুল হাজী জানান, অস্ত্রধারী ডাকাত দল তাকে মারপিট করে আলমারির চাবি নিয়ে আলমারিতে রাখা প্রায় ১০০ ভরি স্বর্ণালংকার লুট করে।

কাশিনাথপুর পুলিশ ফাঁড়ির নিকটেই ডাকাতির ঘটনা ঘটলেও পুলিশ কোন প্রকার সহযোগীতা না করায় ক্ষুব্ধ হন ব্যবসায়ীরা, ফলে শনিবার সব দোকান বন্ধ রেখে ব্যবসায়ীরা প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

তারা এক সময় নগরবাড়ি-বগুড়া মহাসড়ক অবরোধের চেষ্টা করেন। পরে পুলিশ ও সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শফিকুল ইসলামের আশ্বাসের কারণে তারা সোনা পট্টীতে প্রতিবাদ সভা করেন এবং বিকাল থেকে দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নেন।

এ প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন মার্কেট মালিক জহির উদ্দিন ও জুয়েলার্স সমিতির সভাপতি জামান উদ্দিন, ব্যবসায়ী শাহা-আলম মিয়া সোহেল, রেজাউল করিম, অরুন কর্মকার প্রমূখ।

কাশিনাথপুর জুয়েলার্স সমিতির সভাপতি জামান উদ্দিন দাবি জানিয়ে বলেন, আমরাদের নিরাপত্তার জন্য স্থায়ীভাবে পুলিশী নিরাপত্তা দেওয়া হোক।

এ,এস,পি সার্কেল(বেড়া) জাকির হোসাইন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ব্যবসায়ীদের জন্য ইতিমধ্যে পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে। ডাকাত দলকে আটক ও মালামাল উদ্ধারে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।