বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

image_pdfimage_print

বার্তাকক্ষ : রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো. সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক মো. মইনুল ইসলাম এ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

রাজধানীর কারওয়ান বাজার এলাকার মাসুদ এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী মো. সাইফুল্লাহ মাসুদ তিন কোটি ৬৮ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাহেদের বিরুদ্ধে দুটি পৃথক মামলা করেন। এই দুই মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

আগামী ১৩ আগস্টের মধ্যে গ্রেফতারি পরোয়ানা কার্যকর করতে উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

করোনা ভাইরাস চিকিত্সা নিয়ে প্রতারণা করার ঘটনার পর সাহেদের অপকর্ম প্রকাশ পেতে শুরু করে।

নানা অনিয়ম, প্রতারণা, সরকারের সঙ্গে চুক্তি ভঙ্গ, করোনা পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট, চিকিৎসায় অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগে রিজেন্ট হাসপাতালের প্রধান কার্যালয়, উত্তরা ও মিরপুর শাখা সিলগালা করে দিয়েছে র‍্যাব।

এদিকে গা ঢাকা দিয়েছেন হাসপাতালের মালিক সাহেদ। সাহেদের বিরুদ্ধে মামলাও করেছে র‍্যাব। তবে এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে তিনি।

জানা গেছে, ব্যবসায়িক অংশীদাররাও রক্ষা পাননি সাহেদের হাত থেকে। বিভিন্ন সময়ে পাওনা পরিশোধের কথা বলে ঢাকা অফিসের টর্চার সেলে নিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ আছে তার বিরুদ্ধে।

উত্তরার ১২ নম্বর সেক্টরের রিজেন্ট গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে ঢোকার প্রবেশ মুখেই বসানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। এখান থেকেই সব অপকর্ম নিয়ন্ত্রণ করতেন সাহেদ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রতারণার শিকার কয়েকজন ভুক্তভোগী বলেন, সাহেদের কাছে টাকার জন্য গিয়েছিলাম। টাকা চাওয়ামাত্রই তার লোকজন আমাদের দুই হাত ধরে থেকে ঐ রুমটির দরজা বন্ধ করে দিল। এরপরই তিনি আমাদের মারধর করতে থাকেন। এমনকি পাওনাদারকে নারী দিয়ে হেনস্তা করাও ছিল সাহেদের অন্যতম কাজ।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!