সিরিজ স্থগিতের আশঙ্কায় লঙ্কান অধিনায়ক

বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের জন্য ভালোভাবে প্রস্তুতি নিয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। তাই সিরিজ স্থগিতের আশঙ্কায় হতাশ লঙ্কানরা। এমনটাই জানিয়েছেন দলটির অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। যেকোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে মাঠে ফিরতে মরিয়া হয়ে আছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

পরিষ্কার কোনো ধারণা ছাড়াই অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তবে, অনিশ্চয়তার পুরো পথটাও যেন পাড়ি দেয়া হয়ে গেছে। তাই তো শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়া হচ্ছে কি হচ্ছে না, এই প্রশ্নের উত্তর না পেয়ে আপাতত টাইগারদের দলীয় অনুশীলন বন্ধ রাখতে বাধ্য হয়েছে বিসিবি।

ওপারেও চিত্র অনেকটা একইরকম। সপ্তাহ দুয়েক আগে অনুশীলন শুরু করেছে লঙ্কানরা। ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের জন্য প্রস্তুতি চালিয়ে গেছেন ২৩ জন ক্রিকেটার।

জাতীয় দলের পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে শ্রীলঙ্কা বোর্ডের চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। টাইগারদের বিপক্ষে সিরিজ নিয়ে কতোটা উদগ্রীব ছিলেন, জানিয়েছেন সেখানেই।

লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ সামনে রেখেই প্রস্তুতি নিয়েছি আমরা। লকডাউনের পর ক্যাম্পের শুরুতে কিছুটা সমস্যা হচ্ছিলো। তবে, ধীরে ধীরে সবাই গুছিয়ে নিয়েছি। মাঠে নামতে সবাই মরিয়া হয়ে আছে। সেটা যেকোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে হোক না কেন। এই সিরিজ নিয়ে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তাতে আমরা সবাই হতাশ।’

মার্চে করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করলে, সব ধরনের খেলা বন্ধ ঘোষণা করে লঙ্কান সরকার। তবে, এপ্রিল থেকে এসএলসির গাইডলাইন অনুযায়ী ঘরেই ফিটনেস ট্রেইনিং শুরু করে ক্রিকেটাররা। জুনে বায়ো বাবলের মাঝে কিছু খেলোয়াড় নিয়ে অনুশীলন শুরু করলেও, দলীয় ক্যাম্প শুরু হয় এ মাসেই। কোচ মিকি আর্থারের অধীনে আবারও পূর্ণাঙ্গভাবে ম্যাচ ফিট হয়ে উঠতে কাজ করছিলেন করুনারত্নেরা। তবে, অক্টোবরের সিরিজ নিয়ে দোলাচলের মাঝে বিপাকে শ্রীলঙ্কা দল।