সুজানগরে হত্যার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

সুজানগরে গুলিকরে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

সুজানগরে গুলিকরে মানুষ হত্যার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর

শহর প্রতিনিধি: গত ২০ আগষ্ট ভাড়ারা উইনিয়নের আত্রাইকান্দা গ্রামে  সন্ত্রাসিরা নিজ বাড়িতে আলেকা বেগম নামে এক নারীকে গুলি করে হত্যা করে। এসময় তার ৮ বছর বয়সী নাতনী নুপুরকে আহত করার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) পাবনা-সুজানগর মহাসড়কের দুবলিয়া বাজারে এ বিক্ষোভ কর্মসূচীতে নুপুরের সহপাঠীরা ছাড়াও পাশ্ববর্তী বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী স্বতস্ফুর্তভাবে কর্মসূচীতে অংশ নেয়।

এ সময় উপস্থিত স্বজন ও এলাকাবাসী এ ঘটনার মূলহোতা চিহ্নিত সন্ত্রাসী কামালসহ সকল অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান।

গত শনিবার (২০ আগস্ট) রাতে পাবনা সদর উপজেলার আত্রাইকান্দা গ্রামে নিজ বাড়িতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে প্রাণ হারান মৎসজীবী আফাজ উদ্দিনের স্ত্রী আলেকা বেগম।

এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে মারাত্মক আহত হয় তার নাতনী শহীদ আব্দুস সাত্তার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী নুপুর।

আশংকাজনক অবস্থায় তাকে প্রথমে পাবনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়ার পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

পরে অবস্থার আরও অবনতি হলে নুপুরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।দুই চোখে গুলি লাগায় নুপুর এখন দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী অঅফাজ উদ্দিন বাদী হয়ে পাবনা সদর থানাতে ঐ গ্রামের চিহ্নিত সন্ত্রাসী কামাল সহ ১২ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। তবে মামলা দায়েরর দুইদিন পার হলেও এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

তবে এবিষয়ে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল হাসান বলেন ঘটনা শুনার পরে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এসেছি।

মামলা দায়ের হয়েছে আসামিদের নজরদারিতে রাখা হয়েছে তারা যেখানেই পালিয়ে থাকুক তাদের গ্রেফতার করা হবে।

তবে এলাকাবাসীর এবং নিহতের পরিবার জানান খুনিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেরাচ্ছে। তাদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানান তারা।