বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:৫৭ পূর্বাহ্ন

সুজানগরে নদীরপাড় দিয়ে বালু পরিবহন- নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে ফসলী জমি

সুজানগর প্রতিনিধিঃ পাবনার সুজানগরের চরবিশ্বনাথপুর ও হাজারবিঘা সংলগ্ন পদ্মা নদীরপাড় দিয়ে ভারি যানবাহনযোগে বালু পরিবহন করায় নদীর পার্শ্ববর্তী ফসলী জমি ভেঙ্গে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে একই কারণে চরবিশ্বনাথপুর পাকা রাস্তা ভেঙ্গে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে।

ভুক্তভোগী কৃষক জবানী সরদারসহ এলাকাবাসী জানান, চরবিশ্বনাথপুর এবং হাজারবিঘা মৌজায় উপজেলার ভায়না ইউনিয়ন গোপালপুর, লক্ষীপুর, চলনা, চরপাড়া এবং পৌরসভার চরমানিকদীর এবং চরসৃজানগরসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষের হাজার হাজার বিঘা ফসলী জমি রয়েছে।

ওই সকল গ্রামের কৃষকেরা ওই জমিতে পেঁয়াজ এবং সরিষাসহ বিভিন্ন ফসল আবাদ করে করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন।

কিন্তু কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তি পদ্মা নদী থেকে অবৈধভাবে মোটা এবং ভিটা বালু উত্তোলন করে পদ্মা নদীরপাড় দিয়ে ট্রাক, ট্রলি ও হ্যারো গাড়ীযোগে পরিবহন করছেন।

এতে নদীর পার্শ্ববতী ওই সকল ফসলী জমি ভেঙ্গে নদীতে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।

একই এলাকার কৃষক মন্টু প্রামাণিক অভিযোগ করে বলেন পদ্মা নদীর পার্শ্ববর্তী আমাদের জমির উপর দিয়ে বালু নেওয়ার পথ তৈরী করা হয়েছে। প্রতিদিন ওই পথ দিয়ে শত শত ট্রাক, ট্রলি ও হ্যারো গাড়ীযোগে বালু বহন করা হচ্ছে।

ইতিপূর্বে পদ্মা নদীরপাড় দিয়ে বালু বহন করার কারণে শতাধিক বিঘা জমি নদীতে ভেঙ্গে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে বলেও তিনি জানান।

ভায়না ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান আমিন উদ্দিন বলেন, বালু বহনের কারণে কেবল ফসলী জমি নয়, চরবিশ্বনাথপুর পাকা সড়কও ভেঙ্গে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে গেছে। এতে এলাকার জনসাধারণকে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) (অঃদাঃ) রওশন আলী বলেন বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে খোঁজ-খবর নিয়ে জনস্বার্থে বালু উত্তোলন ও পরিবহনকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
error: Content is protected !!