রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

‘সোহেল মাহফুজ গ্রেফতারে জঙ্গিদের নেটওয়ার্ক তছনছ’

'সোহেল মাহফুজ গ্রেফতারে জঙ্গিদের নেটওয়ার্ক তছনছ'

image_pdfimage_print

উত্তরবঙ্গ ডেস্ক : গুলশানের হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার পরিকল্পনাকারী ও নব্য জেএমবির উত্তরাঞ্চলীয় কমান্ডার সোহেল মাহফুজ ওরফে শাহাদত ওরফে হাতকাটা মাহফুজকে গ্রেফতারের মাধ্যমে জঙ্গিদের নেটওয়ার্ক তছনছ হয়ে গেছে। তারা আর উত্তরাঞ্চলে ঘুরে দাঁড়াতে পারবে না।

শনিবার দুপুরে রাজশাহী রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) এম খুরশীদ হোসেন তার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, সোহেল মাহফুজকে গ্রেফতার করতে নজরদারিতে রাখা হয়েছিলো। সেই মোতাবেক তাকে তিন সহযোগীসহ আমরা শিবগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করেছি। সোহেলকে গ্রেফতারের মধ্যদিয়ে উত্তরাঞ্চলে জঙ্গিদের নেটওয়ার্ক তছনছ হয়ে গেছে।

এম খুরশীদ হোসেন বলেন, হোলি আর্টিজানে হামলার পরিকল্পনায় সোহেল মাহফুজ জড়িত ছিল। এ পর্যন্ত রাজশাহীতে যেসব অভিযান হয়েছে তাতে আমরা মোটামুটি স্বস্তিতে আছি। কারণ মূল আসামিদের ধরতে পেরেছি। এরপরও আমাদের জঙ্গিবিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে। ইতোমধ্যে উত্তরাঞ্চলের প্রতিটি জেলায় জঙ্গিবিরোধী বিশেষ বাহিনী গঠন করা হয়েছে। তাই জনগণের আতঙ্কিত হবার কিছু নেই।

ডিআইজি বলেন, গ্রেফতারকৃতরা সবাই তথ্যপ্রযুক্তি, বিস্ফোরক ও অস্ত্র সরবরাহে দক্ষ ছিল। এই গ্রুপটি জঙ্গিদের বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করে আসছিল। গোদাগাড়ী-তানোরের জঙ্গি আস্তানায় উদ্ধার করা বিস্ফোরক তারাই সরবরাহ করেছিল।

গ্রেফতারকৃত সোহেল মাহফুজের অন্য তিনজন সহযোগী হলেন- নব্য জেএমবির প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ হাফিজুর রহমান ওরফে হাফিজ, অস্ত্র সরবরাহকারী জুয়েল রানা এবং নব্য জেএমবির রাজশাহী চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও নাটোরের সমন্বয়কারী জামাল হোসেন।

তিনি বলেন, সোহেল মাহফুজ ওরফে হাতকাটা সোহেল উত্তরাঞ্চলে নব্য জেএমবিকে সংগঠিত করছিল। পুলিশের কাছে তথ্য ছিল, ঈদে এ অঞ্চলে জঙ্গিদের নাশকতার পরিকল্পনার। তবে পুলিশের তৎপরতায় জঙ্গিরা কোনো অঘটন ঘটাতে পারেনি। সোহেল মাহফুজকে গ্রেফতারের মধ্যদিয়ে জঙ্গিরা আরো দুর্বল হয়ে গেল।

ভারতের বর্ধমানের খগড়াগড় বিস্ফোরণ কাণ্ডে সোহেল মাহফুজ জড়িত থাকার ব্যাপারে সে দেশের গোয়েন্দাদের তথ্যর বিষয়ে ডিআইজি এম খুরশীদ হোসেন বলেন, এ বিষয়টি পুলিশ এখনো নিশ্চিত নয়। তবে সোহেল মাহফুজসহ জেএমবির অন্তত দুই ডজন নেতা ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনআই এর টার্গেটে রয়েছে। জঙ্গি সোহেলকে ভারতেও খোঁজা হচ্ছিল।

শুক্রবার রাতে শিবগঞ্জের পুস্কনি এলাকার একটি আমবাগানের টংঘর থেকে সোহেল মাহফুজসহ চার জঙ্গিকে গ্রেফতার করে জেলা পুলিশ। কুষ্টিয়ার বাসিন্দা সোহেল মাহফুজ যেহেতু গুলশান হামলার সঙ্গে জড়িত, সেহেতু তাকে ঢাকায় পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজমের কাছে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!