শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:০০ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

সৌম্য-শান্তদের ব্যর্থতার দায় কার?

image_pdfimage_print

১৮ জনের টেস্ট স্কোয়াডে ছিলেন না সৌম্য সরকার। সাকিবের ইনজুরির পর, তড়িঘড়ি করে তাকে ডেকে নেয়া হলো স্কোয়াডে। কোনোরকম প্রস্তুতি না থাকলেও, রাখা হল একাদশেও। হুট করে ডাক পাওয়া এই ব্যাটসম্যান, ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে কোনো রানই করতে পারেননি। সৌম্য’র ব্যর্থতার জন্য টিম ম্যানেজমেন্টের চরম অদূরদর্শিতাকেই দায়ী করছেন সাবেক ক্রিকেটাররা। মাত্রাতিরিক্ত প্রত্যাশার চাপে ব্যর্থ হচ্ছেন আরেক ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্তও। যার খেসারত দিতে হচ্ছে দলকে।

প্রক্রিয়াটা দেখুন। ওয়ানডে সিরিজে খেলেছিলেন ৭ নাম্বারে। টেস্টের স্কোয়াড থেকে তিনি বাদ। এরপর ফিরলেন সাকিব আল হাসানের বিকল্প হয়ে! অথচ নামলেন ওপেনিংয়ে। তাও আবার দলের ২ নাম্বার পেসারের দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে!

সৌম্য সরকারকে নিয়ে যেন ছেলেখেলা চলছে! আর সেই খেলায় ব্যর্থ সৌম্য, ব্যর্থ দলও।

ফল যেমন হবার তেমনই হয়েছে। উইন্ডিজের বিপক্ষে ১ম ইনিংসে সাজঘরে ফিরেছেন শূন্য হাতে।

সৌম্য যে এবারই ব্যর্থ হলেন এমন নয়। টেস্টে তার সবশেষ ১০টা ইনিংস দেখুন। রান করেছেন মোট ২৬০। (০, ১৫, ১৭, ২৮, ২০, ১৪৯, ১, ১৯, ১১, ০)। এরমধ্যে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরিটা ক্যারিয়ারেরই একমাত্র। সাকিবের বিকল্প হওয়ার রসদটা কি কখনো জুগিয়েছে তার ব্যাট?

টপঅর্ডারের আরেকজন নাজমুল হোসেন শান্ত। দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পজিশনে ব্যাট করতে নামেন তিনি। খেলছেন ক্যারিয়ারের ৬ষ্ঠ টেস্ট। ১০ ইনিংসে এখন পর্যন্ত সংগ্রহ ২৩০ রান। মোটে একটা ফিফটি, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে যেটি এসেছিল গেল বছর।

আফগানিস্তানের পর আনকোরা উইন্ডিজের বিপক্ষেও লজ্জাজনক পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা, এর দায়ভার বর্তাবে কার কাঁধে?

সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, সৌম্য লাস্ট কবে টেস্ট খেলেছে আমি আসলে জানিওনা। অনেকদিন পর যেহেতু খেলতে নেমেছে, হুট করেই ওকে ওপেনিংয়ে নামিয়ে দেয়া ঠিক হয়নি। আমি খুশি হতাম যদি ওকে ৬ কিংবা ৭ নাম্বারে ব্যাটিংয়ে দেখতাম।

১৮ সদস্যের স্কোয়াড থেকে একজন ছিটকে পড়লে একাদশে ডাকতে হয় বাইরের একজনকে। সাকিব আল হাসানের বিকল্প হন সৌম্য সরকার। এমন ভাবনা আর সিদ্ধান্ত হাস্যরসের খোরাক জোগায় সব মহলে। আর টিম ম্যানেজমেন্টের দূর্বল পরিকল্পনার ছাপ স্পষ্ট হয় আরো।

দিনের পর দিন বাজে ফর্মের পরও কেউ কেউ খেলে যান দিব্যি। ওদিকে রিয়াদ-ইমরুলরা আক্ষেপে পুড়েন।

টিম ম্যানেজমেন্টের ঠোঁটের ডগায় লেগে থাকে যুক্তি। একেকবার তারা দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার ফিরিস্তি শোনান, শান্তদেরকে লম্বা রেসের ঘোড়া ভাবেন। তারপর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশকে লজ্জায় ডোবান।

শান্ত-সৌম্যদের যে ব্যর্থতা, তাতে ভুগছে গোটা দল। দায়টা তাদের যতটুকু, তার চেয়ে টিম ম্যানেজমেন্টের কি কোন অংশে কম?

0
1
fb-share-icon1


শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের প্রিন্স অফ পাবনা

Posted by News Pabna on Thursday, February 18, 2021

© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!