বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:২৫ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

স্বামীকে তালাক দেওয়ায় অ্যাসিডে পুড়তে হলো নুপুরকে

image_pdfimage_print

নাটোরের বড়াইগ্রামে স্বামীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে তালাক দেওয়ায় নার্গিস আক্তার নুপুর (২৭) নামে এক নারীকে অ্যাসিডে ঝলসে দেওয়া হয়েছে। সোমবার রাতে উপজেলার জোয়াড়ী ইউনিয়নের কামারদহ গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই নারীর সাবেক স্বামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গুরুতর অবস্থায় নুপুরকে প্রথমে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তির পর অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকায় শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে স্থানান্তর করা হয়েছে।

দগ্ধ নুপুর কামারদহ গ্রামের আনোয়ার হোসেন তাজেমের মেয়ে এবং আহম্মেদপুর গ্রামের রাহাত আলীর ছেলে আবু তালেবের সাবেক স্ত্রী।

নুপুরের বাবা আনোয়ার হোসেন তাজেম বলেন, আবু তালেব কয়েক বছর ধরে নার্গিস আক্তার নুপুরকে বিয়ে করে আমার বাড়িতেই থাকত। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে প্রায়ই দ্বন্দ্ব-কলহ লেগে থাকত। এ কারণে সাত দিন আগে আমার মেয়ে আবু তালেবকে তালাক দেয়। সোমবার সন্ধ্যার পর নুপুর বাড়ির উঠানে হাঁটাহাঁটি করছিল। এসময় আবু তালেব তার মুখে অ্যাসিড ছুড়ে পালিয়ে যায়। পরে নুপুরের চিৎকারে স্বজনরা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় পাঠান চিকিৎসকরা।

তিনি চিকিৎসকের বরাত দিয়ে বলেন, নুপুরের মুখসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ এসিডে ঝলসে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, আবু তালেব ডাকাতিসহ একাধিক মামলার আসামি। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব-কলহ লেগে থাকতো। অতিষ্ঠ হয়ে নুপুর আবু তালেবকে তালাক দিতে বাধ্য হয়েছে।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আবু তালেবকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!